4.9 C
New York
Friday, January 15, 2021

Buy now

রোজা রাখছি কিন্তু আমাদের ঘরে কি আদৌ কখনো ঈদ আসবে!ঈদ তো শুধু বড়লোকদের জন্য

রংপুর রেলওয়ে ইস্টিশানের পাশে বাবুপাড়া। সেখানে সেদিন আনন্দের বান ডেকেছিল।যে শিশু কিশোর কিশোরীদের মুখ সারা বছর অন্ধকারে ঢাকা থাকে বিমর্ষ থাকে তাদের মুখেই ফুটে উঠেছিল অনাবিল হাসি।কদিন আগেও রোজা শুরুর সময় ওদের মনে হচ্ছিল রোজা রাখছি কিন্তু আমাদের ঘরে কি আদৌ কখনো ঈদ আসবে!ঈদ তো শুধু বড়লোকদের জন্য।ঈদ মানেতো খুশি আনন্দ কিন্তু আমাদের ঘরেতো কোনদিন ঈদ আসেনা খুশি হয়না আনন্দ হয়না।ছোট্ট রাতুলের ইচ্ছে করেনা ঈদগাহে যেতে।আরমানও যেতে চায়না ঈদগাহে।মনের মধ্যে অনেক না পাওয়ার দুঃখ থাকলেকি আর ছোট্ট আরমানেরা ঈদগাহে যেতে পারে।

ঈদের মাঠে সবাই যখন নতুন জামা জুতো পরে বাবা ভাই আত্মীয়দের নিয়ে নামাজে যাবে তখন ফ্যালফ্যাল করে তাকিয়ে থাকতে হবে আরমানদের।সে জন্যই বুকের মধ্যে পাথর চাপা দিয়ে কষ্ট লুকিয়ে রাখে।মনে করে নাহ এবারও ঈদের মাঠে যাবো না। কিন্তু ওরা কি আর জানতো যে ওদেরও বন্ধু আছে যারা ওদের কথা ভাবে।আমি যখন বলি আরমান তোমাদের বন্ধুরা আসবে তোমাদের সাথে দেখা করতে। আরমানেরা সবাই বিস্মিত হয়।বলে আমরাতো ছোট মানুষ আমাদের আবার বন্ধু কে?আমি বলি কেন তোমাদের বন্ধু কি হতে পারেনা?তোমাদের বন্ধু মানে ছোটদেরবন্ধু। এ কথা শুনে নকিব,তোফায়েল আরমান তিহাম সহ বাবু পাড়ার অন্য বাচ্চারা খুব অবাক হয়।জানতে চায় সেই বন্ধুরা এসে কি করবে?আমাদের দেখেতো তাদের খারাপ লাগবে। আমাদের গায়ে নতুন জামা জুতো নেই আমরা কি করে সেই সব বন্ধুদের সামনে যাবো? নাহ যাবো না।

আমি বলি তোমাদের বন্ধুরা আসবে তোমাদের জন্য আনন্দ নিয়ে।তারা তোমাদের জন্য খুশির বার্তা বয়ে আনবে এবং তোমাদের সবার মনের মধ্যে অন্যরকম আনন্দ ছুয়ে যাবে।আমার কথা ওদের কিছুটা বিশ্বাস হয় আবার কিছুটা বিশ্বাস হয়না।ওরা ভাবে ছোটদের আবার বন্ধু কিসের?ছোটদেরবন্ধু বলে কিছু হয় নাকি?আমি ওদের আশ্বাস দেই।বলি দেখবে নিশ্চই আসবে।ওরা পথ চেয়ে বসে থাকে। সন্ধ্যা পেরিয়ে সকাল হয় আরো একটা সন্ধ্যা নামে কিন্তু বন্ধুরা আর আসেনা।আসবে কি করে? বন্ধুরা যে ওদের জন্য কিছু কেনাকাটা করতে ব্যস্ত। তার পর এলো সেই খুশির দিন।আরমানেরা সবাই দল বেধে মিলিত হলো তাদের বন্ধুদের সাথে।বন্ধুরা এসে একে একে সবার সাথে কথা বললো আর প্রত্যেকের হাতে ধরিয়ে দিলো নতুন জামা।আরমানদের মুখে হাসি ফুটে উঠলো।কাপা কাপা গলায় বললো আমরা ভেবেছিলাম আমাদের বুঝি কোন ঈদ নেই,আমাদের জন্য শুধুই রোজা। এখন দেখছি আমাদেরও ঈদ হবে।

এটি নিছক কোন গল্প নয়। অন্যের জন্য বাঁচি এবং সুন্দর আগামীর স্বপ্ন দেখি এবং স্বপ্ন দেখাই।এমনই একদল মানুষ নিজেদের জন্য ঈদের আনন্দটাকে ভাগাভাগি করে নিয়েছে সুবিধা বঞ্চিত শিশু কিশোর কিশোরীদের সাথে। বাবুপাড়ার পঞ্চাশেরও অধিক শিশু কিশোর কিশোরীদের মাঝে তারা নতুন কাপড় বিতরণ করেছে। আমরা তাদের বলি ছোটদেরবন্ধু

বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি সংগঠন প্রপদ।  প্রপদ পরিবারের অবিভাবক Syed Anowerul Azim sir (Assistant professor,dept. of Geography & Environmental SCIENCE) এবং Ashan Uz Zaman  (Assitant Professor, Accouting & Information systems) এবং প্রপদ পরিবারের সবার সাহায্য সহযোগিতায় রংপুর রেলওয়ে ইস্টিশানের পাশে বাবুপাড়ায় অসহায়, সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের  পোশাক প্রদান করা হয়. তাদের মুখের এক চিলতে হাসির জন্য একটু চেষ্টা। ছোটদেরবন্ধু পরিবারের পক্ষ থেকে প্রপদ এবং এর সাথে যুক্ত সবাইকে ধন্যবাদ জানাই এই অসাধারণ কাজটি করার জন্য।আমরা চাই পৃথিবীর প্রতিটি শিশু কিশোর কিশোরী নিরাপদ হোক এবং তাদের অধিকার ফিরে পাক।তাদের জীবন হোক আনন্দের।

–ছোটদেরবন্ধু

ছবিঃ আশান উজ জামানের ফেসবুক থেকে সংগ্রহীত।

ছোটদেরবন্ধুhttps://www.chotoderbondhu.com
সুন্দর আগামীর স্বপ্ন দেখতে দেখতে জীবনের এক একটি দিন পার করা।সেই ধারাবাহিকতায় ছোটদেরবন্ধু গড়ে উঠছে তিল তিল করে।

Related Articles

Stay Connected

21,364FansLike
2,506FollowersFollow
0SubscribersSubscribe
- Advertisement -

Latest Articles