More
    Homeনতুন কিছু করিআমি তাদের মতো একজন হব না যে নিজের দেশকে ডাস্টবিন বানাচ্ছে

    আমি তাদের মতো একজন হব না যে নিজের দেশকে ডাস্টবিন বানাচ্ছে

    পূর্ণ সিয়ন সাংমা আমার বন্ধু।আমার খুবই ভালো বন্ধু।সেই সাথে আমার ভালো বন্ধু মাশফিক রহমান লাবিব,নাফিস নাইমুল হক আর আহনাফ আবিদ রায়েদ। এক সকালে ওরা স্বপ্নের মত জেগে উঠলো।মানুষ যেমন দারুন সব স্বপ্ন দেখে আনন্দ পায় ওরা তেমনই এক দারুন স্বপ্ন দেখালো আমাদের।আমরা যা স্বপ্ন দেখি তা স্বপ্নই থেকে যায় কিন্তু আমার এই বন্ধুরা এমন স্বপ্ন দেখেছে যা ওরা সত্যি করবেই করবে।আমি মুগ্ধ হয়ে দেখি আমার এই বন্ধুদের।আর ভাবি ওরা কি শুধু আমারই বন্ধু?ওদের ভাবনাগুলো দেখে সেটা বিশ্বাস হয়না কারণ ওদের ভাবনাতো শুধু একার নয় বরং ওরা স্বপ্ন দেখে দেশকে বদলে দেওয়ার।সোনার বাংলাদেশ বলে আমরা যে গলাফাটাই কিন্তু সত্যিইকি আমরা আমাদের দেশটাকে সোনার বাংলা করে গড়ে তুলতে পেরেছি?মোটেই পারিনি।আমাদের সোনার বাংলায় অনেক খাদ আছে।গিনিসোনা হতে যে ঢের বাকি।নাইট্টিক এসিডে ডুবিয়ে সোনার খাদ যেমন বের করতে হয় তেমনি আমাদেরও অনেক কিছু করতে হবে দেশটিকে সোনার বাংলা করে গড়ে তুলতে হলে।

    আজ তাহলে আমাদের এই চার বন্ধুর গল্পই হোক।ওদের দেখা স্বপ্নের কথাই না হয় চারদিকে ছড়িয়ে দেওয়া হোক।আকাশে বাতাসে ধ্বনিত হোক সেই আহ্বান যা দেশকে আরো একটু সোনার বাংলা হিসেবে গড়ে তোলার দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে।

    আমাদের এই চার বন্ধু মিলে ঠিক করেছে যে ওরা সকলে আগামী মে দিবসে সংসদ ভবনের ফুটপাথে পড়ে থাকা ময়লা তুলে পরিষ্কার করবে কিন্তু ওদের চারজনের পক্ষে কাজটি অনেক কঠিন হয়ে যাবে।তাই ওরা  সবাইকে আহব্বান করছে উক্ত দিনে সকলে একত্রে অন্তত পক্ষে জাতীয় সংসদ ভবন এর সামনের স্থান পরিষ্কার করুক।এই কার্যক্রম এর আরেকটি কারণ মহান মে দিবসের শ্রমজীবি মানুষদের সংগ্রামকে অনুভব করা।আপনারা যদি পারেন তাহলে প্লিজ ওদের সাথে যোগ দিবেন।যারা সিওর যাবেন বা যেতে চান কমেন্ট করবেন

    সময়:পহেলা মে “মহান মে দিবস” সকাল ১০:০০ আড়ং এর সামনে মানিক মিয়া এভিনিউ।

    আমি আমার এই বন্ধুদের ভাবনাগুলো ভেবে খুবই পুলকিত হয়েছি এবং আরো বেশি আশান্বিত হয়েছি সত্যিই আমাদের এই দেশে এমন বন্ধুরা যতদিন আছে ততোদিন এ দেশের ভয় নেই। এরা নিশ্চই দেশটিকে সত্যিকারের সোনার বাংলা করে গড়ে তুলবেই।কিন্তু শুধু ওরাই কেন করবে?দেশটাকি আমার আপনারও নয়?আমাদেরওকি কিছু দায়িত্ব নেই?মনে করুন আমাদের কোন এক বন্ধু কিংবা ধরুন আপনি নিজে চট্টগ্রামে আছেন কিংবা রাজশাহী রংপুর কিংবা খুলনাতে আছেন এবং ওদের এ আয়োজনে আপনি আসতে পারছেন না অথচ খুবই ইচ্ছা আপনার।তো কোন সমস্যাই নেই।সংসদ ভবনের সামনে নাই বা আসা হলো আপনি বরং আপনার কাছের মানুষদের নিয়ে আপনার আঙ্গিনাটুকু পরিস্কার করুন। এভাবে সবাই যদি নিজ আঙ্গিনা পরিস্কার করে তাহলে গোটা বাংলাদেশ পরিস্কার হয়ে যাবে।আমাদের এই চার বন্ধু যে স্বপ্নটি দেখেছে যে কথাটি বুকে ধারণ করেছে আসুন আমরাও সেটাকে বুকে ধারণ করি আর শপথ নেই “আমি তাদের মতো একজন হব না যে নিজের দেশকে ডাস্টবিন বানাচ্ছে

     

    লেখাঃ জাজাফী

    ছোটদেরবন্ধু
    ছোটদেরবন্ধুhttps://www.chotoderbondhu.com
    সুন্দর আগামীর স্বপ্ন দেখতে দেখতে জীবনের এক একটি দিন পার করা।সেই ধারাবাহিকতায় ছোটদেরবন্ধু গড়ে উঠছে তিল তিল করে।
    RELATED ARTICLES

    Most Popular