ফিচার শিশু অধিকার 

শিশুদের এই ক্ষুদ্র উপহারটুকু দিতে পারি

হিমু চন্দ্র শীল বলা হয়ে থাকে আজকের শিশু আগামী দিনের ভবিষ্যত।আজকে সদ্য জন্ম নেওয়া শিশুটি হাটি হাটি পা পা করে একসময় বেড়ে উঠবে।শৈশব,কৈশোর পেরিয়ে সে শিশুটি প্রবেশ করবে তারুণ্যে।শক্ত হাতে হাল ধরে পাল উড়াবে দেশের।সব বাধা বিপত্তি ঠেলে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে এগিয়ে নিয়ে যাবে।এক সময় সে শিশুটির পরিপক্ক কাঁধে ভর করে মাথা তুলে দাঁড়াবে দেশ।কিন্তু আদৌ এটা কি সম্ভব!আমরা কি সে অনাগত কিংবা সদ্য জন্ম নেওয়া শিশুটির জন্য এখনো কি নিরাপদ একাট পরিবেশ তৈরি করতে পেরেছি।পেরেছি কি কোমল কলিগুলোকে নির্বিঘ্নে স্নিগ্ধ পুষ্প হয়ে ফুটতে দিতে।জানি,এ প্রশ্নের উত্তর আমাদের কারো…

59,068 total views, 688 views today

বিস্তারিত পড়ুন
কিশোর কিশোরী সংবাদ নতুন কিছু শিখি 

জিলানীর সততার গল্প এবং আমাদের সততা স্টোর

হিমু চন্দ্র শীল তখনকার সময় ইরাকে ভালো পড়াশুনা ও ব্যবসার সুযোগ থাকার কারণে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ থেকে পড়াশুনা ও ব্যবসার জন্য মানুষ ইরাকের রাজধানী বাগদাদে আসত।পড়াশুনার জন্য হযরত আবদুল কাদের জিলানী একদিন বাগদাদ শহরের উদ্দেশ্যে ব্যবসায়ীদের সাথে যাত্রা শুরু করেন।কতিথ ছিল তারা যে পথ দিয়ে যাবে ওই পথে ডাকাতের উৎপাত বেশি ছিল।জিলানী যখন ব্যবসায়ীদের সাথে বাগদাদ যাত্রা শুরু করেন তখন সত্যি সত্যি তাদের দল পথিমধ্যে ডাকাতের কবলে পড়েন।তখন ডাকাত সর্দার জিলানীকে জিজ্ঞাসা করলেন,তোমার সাথে কি আছে?জিলানী এতটুকুও না ঘাবড়িয়ে বললেন,আমার কাছে ৪০টি স্বর্ণ মুদ্রা আছে।আর শার্টের বোতামগুলো দেখিয়ে বললেন,এই সেই…

7,097 total views, 22 views today

বিস্তারিত পড়ুন
কিশোর কিশোরী সংবাদ ফিচার সামাজিক সমস্যা 

মেধাবী জাতি তৈরিতে বড় চ্যালেঞ্জ

হিমু চন্দ্র শীল মাঝে মধ্যে আমাদের দেশের খবরের কাগজ কিংবা টেলিভিশনে দেশের শিশুদের নিয়ে কোনো একটা ভালো নিউজ দেখলে বেশ খুশি হই।মনে মনে বলি যাক অন্তত এইবার হলেও আমাদের দেশের শিশুরা বিশ্বের অন্যান্য দেশের শিশুদের সাথে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে।এই বুঝি আমাদের দেশের শিশুরাও বিশ্ব জয় করে ফেলবে।তৃষ্ণার্ত মনে যখনি তৃপ্তির ঢেকুরটা তুলতে যাবো,ঠিক তখনি এই দেশে শিশুদের প্রতি নির্যাতন কিংবা শিশুদের জীবন যাত্রার মানের পরিসংখ্যান দেখে নিমিষেই সে আশা উদাও হয়ে যায়।এই বয়সেই তাদের স্কুলে যাওয়ার কথা,কিংবা বুকে একরাশ স্বপ্ন নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার কথা।কিন্তু না!তারা আজ অমনুষত্ব আর দারিদ্র…

27,583 total views, 4 views today

বিস্তারিত পড়ুন
কিশোর কিশোরী সংবাদ 

রেডিয়েন্ট ফিস ওয়ার্ল্ডে সুবিধা বঞ্চিত শিশুদের সাথে একদিন।

লেখক;হিমু চন্দ্র শীলছাত্র;কক্সবাজার সরকারী কলেজ। 4,954 total views, 1 views today

4,954 total views, 1 views today

বিস্তারিত পড়ুন
কিশোর কিশোরী সংবাদ শিশু কিশোর নির্যাতন 

বাড়ি ডুমছের গ্রামে!যেখানে সকাল সন্ধ্যা দুঃখিদের দেখা মেলে

বিভিন্ন সংগঠনে ভলান্টিয়ারিং করার সুবাদে নানান অভিজ্ঞতা যেমনি লাভ করা যায়।ঠিক তেমনি সুন্দর সুন্দর ঘটনারও সাক্ষী হওয়া যায়। বাড়ি ডুমছের গ্রামে!যেখানে সকাল সন্ধ্যা দুঃখিদের দেখা মেলে। আজ শোনাবো সেই গল্প।সুবিদা বঞ্চিত শিশুদের স্কুলের সাথে আছি বলে হরহামেশা শিশুদের সাথে মিশতে পারি।তবে এইবার যে শিশুদের সাথে মেলামেশা করার সুযোগ হয়েছিল,বলতে গেলে সেই অভিজ্ঞতাটা সবারচেয়ে ভিন্ন। আর ওই শিশুদের পেছনে লুকিয়ে আছে নানান রকমের গল্প।এক একটা গল্প যেন সিনেমার কল্প কাহিনীকেও হার মানায়।নাফ নদীর ওইপার থেকে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী কতৃক নির্যাতিত হয়ে রোহিঙ্গা জাতি গোষ্ঠীরা আশ্রয় নিয়েছে এইপারে।রোহিঙ্গাদের মধ্যে অর্ধেকেরও বেশি আবার শিশু।যারা…

183,591 total views, 640 views today

বিস্তারিত পড়ুন
কিশোর কিশোরী সংবাদ ফিচার 

শিশুদের কাঁধে ভারী বইয়ের ব্যাগ!এটাও কি শিশু নির্যাতন নয়?

কিছু দিন আগে একটা কেজি স্কুলের পাশ দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিলাম।স্কুল ছুটি হওয়ায় একপাশে দাঁড়ালাম পুঁচকেদের কান্ড উৎসুক হয়ে দেখার জন্য।দেখলাম চার পাঁচজন ছাত্র একত্রে দৌঁড়ে বের হয়ে কাঁধের ব্যাগগুলো তাদের অভিভাবকদের হাতে তুলে দিল।কিন্তু একজনের অভিভাবক না আসাতে বেচারা ব্যগটি অনিচ্ছার সত্ত্বেও নিজে বয়ে নিয়ে যাচ্ছে! তবে সবচেয়ে খারাপ লাগল তখন,যখন দেখলাম ব্যাগের ভরে সে যখন অন্যদের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে পারছেনা,দৌঁড়ে ও বন্ধুদের ছুঁতে পারছেনা।আসলে কেজি স্কুল বলতে বইয়ের পাহাড়।সরকারের নির্ধারিত বইয়ের বাইরে ও অনেক বই ক্ষুদে ছাত্রদের হাতে তুলে দেওয়া হয় কেজি স্কুলে।তীব্র অনিচ্ছা থাকার পরও প্রতিদিন বইয়ের…

4,502 total views, 4 views today

বিস্তারিত পড়ুন
খেলাধুলা ফিচার 

বিশ্ববাসী নিশ্চই জানে পৃথিবী নামক গ্রহে কে সেরা ফুটবলার

আর্জেন্টিনার কয়েকটি ক্লাব থেকে খালি হাতে ফিরে এসে ১১ বছরের ছেলেকে গ্রোথ হরমোন ডিফিসিয়েন্সি রোগ থেকে বাঁচানোর জন্য বাবা পারি দেন স্পেনে।কারণ ঐ রোগের মাসিক চিকিৎসার খরচ ছিল ৭৫০০০ টাকা,যা মেসির বাবার পক্ষে যোগাড় করা সম্ভব ছিলনা। বার্সেলোনার ন্যু ক্যাম্পে মাত্র ১৩ মিনিটের ট্রায়াল দিয়ে ক্লাব কর্মকর্তাদের চোখের ভ্রু কুঁচকে দেন ছোট্ট মেসি।সাথে সাথে মেসির জীবন অন্য মোড় নেয়।ক্লাব কর্মকর্তারা তার চিকিৎসা ও অন্যান্য খরচের দায়িত্ব নিয়ে নেন। অদ্ভুত ব্যাপার হচ্ছে ১৩ মিনিটের ট্রায়ালে বাজিমাত!আবার ১৩ বছর বয়সেই বার্সার স্পোটিং ডিরেক্টর কার্লোস রেক্সাস তার খেলায় মুগ্ধ হয়ে তার সাথে একটি…

2,268 total views, no views today

বিস্তারিত পড়ুন