ক্যাম্পাস অ্যাম্বাসেডর-১

This image has an empty alt attribute; its file name is Tahfim-683x1024.jpg

তাহফিমুল তানভীর রাহিব। দিনাজপুর সরকারি কলেজের একাদশ শ্রেনীর ছাত্র।  পড়াশুনার বাইরে ভালোবাসি বিতর্ক করতে, ভালোবাসি গল্পের বই পড়তে ।  এছাড়াও নানারকম সামাজিক কাজেও আগ্রহ বোধ করি। বিতর্কটা অনেকটা প্রোফেশনাল ভাবেই করি।। আমি দিনাজপুর ডিবেটিং সোসাইটির প্রতিষ্ঠাকালীন সভাপতি,  এবং বর্তমান সিনিয়র সহ-সভাপতি ।  ছোটদের বন্ধুর সাথে ভবিষ্যৎ এ কাজ করতে চাই।  কাজ করতে চাই, ছোটদের জন্যে! 

আমি নূরজাহান আক্তার। হলি ক্রস কলেজ এর একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী। গল্পের বই পড়তে, ছবি আঁকতে, ঘুরতে ভালোবাসি। আমি একজন আদর্শ মানুষ হিসেবে নিজেকে দেখতে চাই। অসহায়দের পাশে দাড়াতে চাই। ছোটরা আমার খুব প্রিয়। তাই “ছোটদের বন্ধু” এর মাধ্যমে ছোটদের বন্ধু হতে চাই। ধন্যবাদ “ছোটদের বন্ধু” আমাকে সুযোগ দেয়ার জন্য।


আমি স্নেহা সালাম, 

পড়াশোনার পাশাপাশি আমি গান শুনতে অত্যন্ত পছন্দ  করি। বিভিন্ন দেশের পয়সা সংগ্রহ করা, বই পড়া এবং সাম্প্রতিক বিষয় নিয়ে লেখালেখি করা আমার অনেক শখের মাঝে কয়েকটি। বড় হয়ে একজন সফল শিক্ষক  হওয়ার স্বপ্ন দেখি এবং দেশ ও দেশের প্রতিটি মানুষকে দেশের প্রতি দায়িত্ব পালনে আগ্রহী করে গড়ে তুলতে চাই।  পড়াশোনার পাশাপাশি আমি বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী  কর্মকাণ্ডের সাথে নিজেকে যুক্ত করেছি এর মাঝেই এবং তার মধ্যে ছোটদের বন্ধু তে যুক্ত হয়ে আমার ই ছোটো ছোটো সুবিধাবঞ্চিত ভাইবোনদের  দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে পারব বলে নিজেকে ধন্য মনে হচ্ছে। ছোটদের বন্ধু কাজ করছে আমাদেরই ছোট ভাই কিংবা বোনদের যারা ভাগ্যের নির্মম পরিহাসের জন্য মৌলিক অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। তাদের এই অধিকার যেন তারা পায় তাই ছোটদের বন্ধুর প্রতিনিধিরাও কাজ করে যাচ্ছেন তাদের পড়াশোনার পাশাপাশি। 

আমি অবনী। বর্তমানে আমি রাজউক উত্তরা মডেল কলেজের একাদশ শ্রেণীতে অধ্যয়নরত। 

পড়াশোনার পাশাপাশি প্রবন্ধ, গল্প লিখতে যেমন ভালো লাগে, তেমনি ভালো লাগে গান শুনতে, ছবি আঁকতে। সবচেয়ে বেশি ভালো লাগে নতুন মানুষের সাথে পরিচিত হতে । প্রতিভা হিসেবে বলতে পারি গান গাওয়া, ছবি আঁকা ও সেলাই কাজে নতুন নতুন নকশা ফুটিয়ে তোলা। 

“ছোটদেরবন্ধু” এমন একটি সংগঠন যারা সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের জন্য নিরলসভাবে কাজ করছে। কেবলমাত্র সুবিধাবঞ্চিত শিশুরাই নয়, সকল শিশুরাই আমাদের বন্ধু। “ছোটদেরবন্ধু” – র একজন হিসেবে নির্বাচিত হতে পেরে আমি অনেক আনন্দিত। 

Facebook Comments

আরও অন্যান্য লেখা